28.1 C
Chittagong
মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪
spot_img

― Advertisement ―

spot_img
প্রচ্ছদজাতীয়ভোট নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্যান্য দেশগুলোর সঙ্গে দূরত্ব ঘুচে গেছে: তথ্যমন্ত্রী

ভোট নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্যান্য দেশগুলোর সঙ্গে দূরত্ব ঘুচে গেছে: তথ্যমন্ত্রী

বাংলাদেশে ভোট নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্যান্য দেশগুলোর সঙ্গে যে দূরত্ব সৃষ্টি হয়েছিলো তা ঘুচে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘নির্বাচন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রসহ যে দেশগুলোর সাথে দূরত্ব ছিলো, সেই দূরত্ব ঘুচে গেছে।’

আগামী ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে এ বছরের শুরু থেকেই সরব ছিলো যুক্তরাষ্ট্র। সুষ্ঠু ভোট উৎসাহিত করার কারণ দেখিয়ে গত মে মাসে বাংলাদেশের জন্য নতুন ভিসা নীতি ঘোষণা দেশটি।

এরি মধ্যে একের পর এক বাংলাদেশ সফরে আসেন যুক্তরাষ্ট্রের বড় বড় কর্মকর্তারা। নির্বাচন নিয়ে বিভিন্ন পক্ষের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠকও করেন তারা।

কিন্তু গত ১৫ নভেম্বর ভোটের তফসিল ঘোষণার পর যুক্তরাষ্ট্রের তৎপরতা দৃশ্যত কমে এসেছে। বিশ্ব মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে গত শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্র যে ১৩টি দেশের জন্য স্যাংশন ও ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে, সেই তালিকায় বাংলাদেশ নেই।

বিএনপি নেতাকর্মীরা প্রচারণা চালিয়েছিলো যে, বিশ্ব মানবাধিকার দিবসে বাংলাদেশের ওপর স্যাংশন দেবে যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু নতুন স্যাংশনের তালিকায় বাংলাদেশকে না দেখে হতাশ তারা।

হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপিকে আন্ডারগ্রাউন্ড রাজনৈতিক দল করতে এক তারেক রহমানই যথেষ্ট। আর আন্ডারগ্রাউন্ড দলের সাথে কোনো আলোচনা হবে না।

সিংহভাগ রাজনৈতিক দল ভোটে অংশ নিলেও তফসিল বয়কট করে সহিংস কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে বিএনপি। দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব গোপন স্থান থেকে ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলন করে বিভিন্ন হরতাল-অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করছেন।

আর গত ২৮ অক্টোবর থেকে চলা এই হরতাল অবরোধ কর্মসূচির নামে প্রায় ৩০০ যানবাহনে আগুন দেয়া হয়েছে।

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, পৃথিবীর কোথাও রাজনৈতিক দাবি আদায়ে গুহা থেকে নির্দেশনা দেয় না। কোথাও পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ করে না।

‘বিএনপি জামায়াত মানবতার শত্রু তাদের রুখে দিতে হবে,’ বলেন তিনি।

বিএনপি কার্যালয় তালাবন্ধ থাকা প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, সরকার তাদের কার্যালয়ের তালা দেয়নি। আসলে তাদের কার্যালয়ের তালা খোলার মতো কেউ নেই।