Homeসারাদেশগাইবান্ধায় সরকারি বই বিক্রি; শিক্ষা কর্মকর্তাকে শোকজ

গাইবান্ধায় সরকারি বই বিক্রি; শিক্ষা কর্মকর্তাকে শোকজ

এইচ এম মাহবুবুল আলম।

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে মাধ্যমিক পর্যায়ের সরকারি পুরাতন বিপুল পরিমাণের বই নামমাত্র মূল্যে বিক্রির ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করেছে উপজেলা প্রশাসন। সেই সঙ্গে অভিযুক্ত উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এইচ এম মাহাবুবুল আলমকে কারণ দর্শানো হয়েছে।

তদন্ত কমিটিতে সাদুল্লাপুর উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মো. মতিউল আলমকে প্রধান করা হয়েছে। এই কমিটিতে সদস্য করা হয়েছে সমাজসেবা কর্মকর্তা মানিক রায় এবং প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা আরিফুর রহমান কনককে। কমিটিকে আগামী ৫ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।

এর আগে, গত ২৩ জানুয়ারি গোপন নিলামে সরকারি পুরাতন বই বিক্রির ঘটনা নিয়ে যমুনা টেলিভিশনসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলে নড়েচড়ে বসে উপজেলা প্রশাসন।

আরো পড়ুনঃ   নেত্রকোণায় মডেল মসজিদ নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ
আরো পড়ুনঃ   সাতক্ষীরায় করোনা শনাক্তের হার প্রায় ৬১ শতাংশ

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করে সাদুল্লাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোছা. রোকসানা বেগম জানান, বই বিক্রির ঘটনায় শিক্ষা কর্মকর্তা এইচ এম মাহাবুবুল আলমকে কারণ দর্শানো হয়েছে। এছাড়া ঘটনাটি তদন্ত করতে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের আলোকে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, গত ২৩ জানুয়ারি সাদুল্লাপুর সাব-রেজিস্টার অফিস ভবনের স্টোর রুমসহ তিনটি গুদামে সংরক্ষিত ২০১৬ থেকে ২০২০ শিক্ষাবর্ষের বিপুল পরিমাণের পুরাতন বই বিক্রির ঘটনা ঘটে। মাধ্যমিক স্তরের বিভিন্ন শ্রেণির মজুদ থাকা বইগুলোর বাজার মূল্য প্রায় ৫ লাখ টাকা বলে জানা গেছে। কিন্তু গোপন নিলামে এসব বই অর্ধলাখ টাকায় বিক্রির অভিযোগ উঠে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এইচ এম মাহাবুবুল আলমের বিরুদ্ধে।

আরো পড়ুনঃ   সাতক্ষীরায় করোনা শনাক্তের হার প্রায় ৬১ শতাংশ

জেডআই/

সর্বশেষ সংবাদ