26.9 C
Chittagong
মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪
spot_img

― Advertisement ―

spot_img
প্রচ্ছদখেলাধুলাডিএলএস নিয়মে নামিবিয়াকে উড়িয়ে স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখল ইংল্যান্ড

ডিএলএস নিয়মে নামিবিয়াকে উড়িয়ে স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখল ইংল্যান্ড

খেলাধুলা ডেস্ক :

ম্যাচের নির্ধারিত সময়ের তখন প্রায় দুই ঘন্টা অতিবাহিত হয়ে গেছে। তবে বৃষ্টি বাধায় ইংল্যান্ড-নামিবিয়া মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ তখন শুরু তো দূরের কথা, টসই হয়নি।

এই ম্যাচে জয় ভিন্ন অন্য কোন ফলাফল হলেই আসর থেকে বিদায় নিতে হত ইংল্যান্ডকে। ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের কাছে এই ম্যাচে মহত্ব ছিল তাই অনেক বেশি।

থেমে থেমে ক্ষণে ক্ষণে যতবারই বৃষ্টি এসেছে ততবারই ডাগআউটদের বস জস বাটলারদের কপালে বসেছে চিন্তার ছাপ।

ম্যাচ পরিত্যক্তের যখন প্রবল,তখন টুইটারে মজা নিতেও ছাড়েনি এই ম্যাচ মাঠে না গড়ালে থেকে বেশি লাভবান হওয়া স্কটল্যান্ড।

তবে সবাইকে চমকে দিয়ে হঠাৎ উজ্জ্বল অ্যান্টিগার আকাশ। আর তাতে মাঠে সংক্ষিপ্ত পরিসরে মাঠে গড়াল ম্যাচ। এরপর আরেক দফা বৃষ্টি নামলেও অপ্রতিরোধ্য ইংলিশদের থামানোর জন্য যথেষ্ট ছিলনা।

দফায় দফায় বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ১০ ওভারে নেমে আসা ম্যাচে নামিবিয়াকে ডিএলএস নিয়মে ৪১ রানে হারিয়ে সুপার এইটে ওঠার সম্ভাবনা উজ্জ্বল করল ইংলিশরা।

এখন প্রার্থনা কেবল চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী অস্ট্রিলিয়ার ‘জয়ের’ জন্য। রোববার সকালে অস্ট্রেলিয়া স্কটল্যান্ডকে হারালেই যে সুপার এইট নিশ্চিত হবে ইংল্যান্ড। স্কটিশ আঘটন অথবা বৃষ্টিতে ম্যাচ পরিত্যক্ত হলে বিদায়ঘন্টা বাজবে ইংলিশদের।

তবে টস হেরে ১১ ওভারের ম্যাচে ব্যাটিংয়ে নামা ইংল্যান্ড এদিন শুরুতে বিপদের আভাসই পেয়েছিল। দুই বিস্ফোরক ওপেনার।

ফিল সল্ট ও জস বাটলারের দলীয় ১৩ রানের মাথায় সাজঘরে ফেরেন।ডেভিড ভিসার অসাধারণ স্পেল(২-০-৬-১) শেষে ৩ ওভারে ইংল্যান্ডের রান ১৮/২!

চাপে পড়া ইংল্যান্ড ম্যাচে ফেরে জনি বেয়ারস্টো ও হ্যারি ব্রুকের ৫৬ রানের তৃতীয় উইকেট জুটি। ৩০ বলেই এই রান যোগ করেন দুজন।

৩ চার ও ২ ছক্কায় বেয়ারস্টো ১৮ বলে ৩১ রান করে বিদায় নিলেও ব্রুক শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন ২০ বলে ৪৭ রান করে। তাঁর ইনিংসটি সাজানো ৪টি চার ও ২ ছক্কায়।

ইংল্যান্ড ৮ ওভারে ৩ উইকেটে ৮২ রান তোলার পর বৃষ্টি এসে খেলা থামায়। কিছুক্ষণ পরে খেলা শুরু হলেও ততক্ষণে হাওয়া আরেকটি ওভার। শেষ দুই ওভারে ইংল্যান্ড তোলে ৪০ রান।যাতে ব্রুকের পাশাপাশি ঝড় তুলেন মঈন আলী ও লিয়াম লিভিংস্টোন।

মইন ৬ বলে ১৬ ও লিভিংস্টোন ৪ বলে ১৩ রান করে ইংল্যান্ডকে এনে দেন বড় সংগ্রজ। চ্যাম্পিয়নদের ইনিংস থামে ৫ উইকেটে ১২২ রানে।

ডিএলএস নিয়মে নামিবিয়ানরা অবশ্য লক্ষ্য পায় ১২৬ রানের।তবে সেটি ছাপিয়ে তখন একমাত্র দেখার বিষয় ছিল বৃষ্টি আর আসে কিনা। না প্রকৃতি আর বাধা দেয়নি। ইংলিশ বোলারাও নিজদের কাজটা সেরেছেন প্রত্যাশা মতোই।

১০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে নামিবিয়া থামে ৮৪ রানে। বল হাতে উজ্জ্বল ভিসা ১২ বলে ২৭ রানের ঝড়ে নামিবিয়ার পরাজয়ের ব্যবধান কমান।