27.7 C
Chittagong
মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪
spot_img

― Advertisement ―

spot_img
প্রচ্ছদচট্টগ্রামপর্ণকুঠিরকে 'উন্মুক্ত পাঠাগার'-এ রূপান্তরের আহ্বান

সংগঠক সৈয়দ আবদুল হামীদ আল্ হাদীর স্মরণসভায় বক্তারা

পর্ণকুঠিরকে ‘উন্মুক্ত পাঠাগার’-এ রূপান্তরের আহ্বান

বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা রাঙ্গুনিয়া উপজেলা মডেল শাখার আজীবন সদস্য, পোমরা ইউনিয়ন শাখার উপদেষ্টা ও সহকারী নির্বাচন কমিশনার সৈয়দ আবদুল হামীদ আল্ হাদী’র ইন্তেকালে ৩ জুলাই ২০২৪, বুধবার বিকাল ৩টয় পোমরা ইউনিয়ন শাখার উদ্যোগে স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়।

পোমরা শান্তিরহাটস্থ মরহুমের আবাসগৃহের আঙ্গিনায় সংস্থার ইউনিয়ন শাখার সভাপতি ডা. হেকিম রফিকুল ইসলাম তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন মানবাধিকার রাঙ্গুনিয়া উপজেলা মডেল শাখার সভাপতি সাহিত্যিক ও গবেষক মাওলানা মুহাম্মদ জহুরুল আনোয়ার।

প্রধান আলোচক ছিলেন সংস্থার আজীবন সদস্য, কর্ণফুলী নদী গবেষক ও পরিবেশ সুরক্ষা সংগঠক, সাংবাদিক আলীউর রাহমান।

অতিথি বক্তা ছিলেন সংস্থার উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম আজাদ, সহ- সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদুল করিম রিংকু, আজীবন সদস্য ফিরোজ আহমেদ চৌধুরী, পৌরসভা শাখার সভাপতি মোহাম্মদ নূরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, সহ-সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ফজলে এহসান শামীম, কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ খাইরুল আলম, আজীবন সদস্য এমফিল গবেষক শাহযাদা মাওলানা সৈয়দ মুহাম্মদ গোলাম রসুল, পোমরা শাখার সহ-সভাপতি জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী আইয়ুব, সহ-সভাপতি মাস্টার মোহাম্মদ মোসলেম উদ্দীন, প্রধান শিক্ষক নির্মল চন্দ্র শীল, প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ মাহমুদুর রহমান, মোহাম্মদ ইউছুফ সওদাগর, মাওলানা আবদুল মোতালেব মুনীরী, সাংবাদিক দেলোয়ার হোসাইন রুশাই প্রমুখ।

সংস্থার পোমরা শাখার সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক মোহাম্মদ মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জুর সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন হযরত সৈয়দ আযীম উদ্দীন আল্ আরাবী ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মাওলানা সৈয়দ  আইয়ুব নূরী ফরহাদাবাদী এবং পরিবারের পক্ষে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন ডা. এ কে এম মেসবাহ্ উদ্দিন শওকত।

প্রধান অতিথি মরহুমের মানবাধিকার ও সুশাসন প্রতিষ্ঠায় যুগান্তকারী ভূমিকা এবং ইসলামী শিক্ষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতির বিকাশে বহুমাত্রিক প্রতিভার দিকগুলো তুলে ধরেন।

সততা, ন্যায়পরায়নতা ও পরোপকারিতার জন্য তিনি সকল ধর্মাবলম্বী ও রাজনৈতিক মতাদর্শের মানুষের আস্থাশীল ও শ্রদ্ধাভাজন ছিলেন। মাওলানা জহুর মহুমের স্মরণে সংস্থার কার্যালয়ে ‘সাহিত্যিক সৈয়দ আবদুল হামীদ স্মরণ চেয়ার’ স্থাপনের ঘোষণা দেন।

প্রধান আলোচক বর্তমান প্রজন্মের সুশিক্ষা অর্জন, জ্ঞান আহরণ, বিজ্ঞান চর্চা ও মানবাধিকার আদর্শে মনোনিবেশ ও অনুপ্রেরণায় মরহুমের সাহিত্য চর্চার ‘পর্ণকুঠির’কে ‘উন্মুক্ত পাঠাগার’-এ রূপান্তরের আহ্বান জানান।

অতিথি বক্তাদের আলোচনায় মরহুমের আবাসগৃহ থেকে হযরত সৈয়দ আযীম উদ্দীন আল্ আরাবী (রাহ্)-এর মাযার ও কমপ্লেক্সের রাস্তাটি ‘গবেষক সৈয়দ আবদুল হামীদ সড়ক’ নামকরণের দাবি জানানো হয়।