Homeঅপরাধইয়াবা ও জাল টাকাসহ তিন এপিবিএন সদস্য গ্রেপ্তার

ইয়াবা ও জাল টাকাসহ তিন এপিবিএন সদস্য গ্রেপ্তার


কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা তিন আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ান (এপিবিএন) সদস্য ইয়াবা ও জাল টাকাসহ গ্রেপ্তার হয়েছে।

কক্সবাজারস্থ এপিবিএন-৮ এর অধিনায়ক এসপি শিহাব কায়সার খান জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) রাতে উখিয়া উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের তানজিমারখোলা ১৩নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা তিন এপিবিএন সদস্যের বিরুদ্ধে ইয়াবা সম্পৃক্ততার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো: এপিবিএন-৮ এ কর্মরত উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. সোহাগ এবং কনস্টেবল মো. মিরাজ ও মো. নাজিম।

স্থানীয় রোহিঙ্গাদের কাছ থেকে অভিযোগের বরাতে এসপি শিহাব বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা এসআই সোহাগ বেশ কিছুদিন ধরে উখিয়ার তানজিমারখোলা ১৩ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এ-ব্লকের হেড মাঝি (কমিউনিটি নেতা) মো. একরামকে (৩৮) ইয়াবা বিক্রির জন্য চাপ দিয়ে আসছিলো। এতে ওই রোহিঙ্গা মাঝি রাজি না হওয়ায় তাদের মাঝে বিরোধের সৃষ্টি হয়। পরে স্থানীয় রোহিঙ্গা একরাম বিষয়টি এপিবিএন এর সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের কাছে অভিযোগ করেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অভিযোগের ব্যাপারে এপিবিএন এর একটি দল অনুসন্ধান চালায়। এতে এক পর্যায়ে এসআই সোহাগের সঙ্গে রোহিঙ্গা মাঝি একরাম বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়লে ইয়াবা সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে এপিবিএন এর অনুসন্ধানকারী দলের কাছে সন্দেহ জাগে।

এপিবিএন অধিনায়ক আরো বলেন, পরে বৃহস্পতিবার রাতে তানজিমারখোলার এপিবিএন এর ক্যাম্পে এসআই সোহাগের নিজের কক্ষে অভিযান চালায় হয়। এতে তল্লাশি করে লুকিয়ে রাখা অবস্থায় ১ হাজার ৯৪৫টি ইয়াবা এবং কিছু জাল টাকা পাওয়া যায়। এসময় ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগে এসআই সোহাগ এবং এপিবিএন এর দুই সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়।

উখিয়া থানার ওসি মো. সঞ্জুর মোর্শেদ বলেন, রাতেই উখিয়ার তানজিমারখোলা রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা এপিবিএন এর ৩ সদস্যকে ইয়াবা ও জাল টাকাসহ গ্রেপ্তারের পর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় গ্রেপ্তারদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা দায়ের হয়েছে বলে জানান ওসি।

প্রেমিকার আত্মহত্যা, হাসপাতাল থেকে লাফিয়ে প্রেমিকের আত্মহত্যার চেষ্টা

প্রতীকী ছবি।বগুড়া ব্যুরো: প্রেমিকের সাথে বাকবিতণ্ডার জেরে অ্যালুমিনিয়াম ফসফাইড (গ্যাস ট্যাবলেট) সেবন করে বগুড়ার বিয়াম ল্যাবরেটরি স্কুল ও কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী নাহিদা আকতার আত্মহত্যা...