28.1 C
Chittagong
মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪
spot_img

― Advertisement ―

spot_img
প্রচ্ছদচট্টগ্রামলাখ টাকা জরিমানা গুনল খাতুনগঞ্জ-কর্ণফুলী মার্কেটের ৫ প্রতিষ্ঠান

লাখ টাকা জরিমানা গুনল খাতুনগঞ্জ-কর্ণফুলী মার্কেটের ৫ প্রতিষ্ঠান

ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের ঘোষণার পর থেকে চট্টগ্রামে এক লাফে দ্বিগুণ বেড়ে যায় নিত্যপণ্যটির দাম। এমন পরিস্থিতিতে পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য অভিযান শুরু করেছে জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর।

আজ শনিবার (৯ ডিসেম্বর) দুপুরে নগরীর জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর চট্টগ্রামের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ ফয়েজ উল্যাহর নের্তৃত্বে দেশের বৃহত্তম পাইকারীবাজার চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জ ও নগরীর চৌমুহনী এলাকার কর্ণফুলী মার্কেটে অভিযান চালানো হয়।

এ সময় সরকারি নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে অতিরিক্ত দামে পেঁয়াজ বিক্রি ও মূল্যতালিকা না থাকায় খাতুনগঞ্জের তিন প্রতিষ্ঠান এবং কর্ণফুলী মার্কেটের ২ প্রতিষ্ঠানতে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর চট্টগ্রামের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ ফয়েজ উল্যাহ জানান, বাজার অস্থিতিশীল করতে একশ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী সরকারের ধার্যকৃত মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি করছে না। এমন তথ্য পেয়ে খাতুনগঞ্জ ও কর্ণফুলী মার্কেটে অভিযান চালানো হয়।

এ সময় বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করায় খাতুনগঞ্জের বরকত ভান্ডারকে ২০ হাজার টাকা, এএইছ ট্রেডার্সকে ১০ হাজার টাকা, একে ট্রেডার্সকে ২০ হাজার টাকা এবং কর্ণফুলী মার্কেটে ফারুক স্টোরকে ৩০ হাজার টাকা, আলিফ ট্রেডার্সকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

অভিযানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর চট্টগ্রামের সহকারী পরিচালক নাসরিন আক্তার ও রানা দেব নাথ।

জানা গেছে, ভারত শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) থেকে আগামী মার্চ মাস পর্যন্ত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করেছে। এমন খবরে অস্থির হতে থাকে পেঁয়াজের বাজার।

শুক্রবার দুপুরের পর থেকে সারাদেশে পেঁয়াজের দাম বাড়তে শুরু করে। মাত্র কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে অসাধু ব্যবসায়িরা মজুদ থাকা সর্তেও পেঁয়াজের দাম কেজিপ্রতি বাড়িয়ে ভারতীয় পেঁয়াজ ১৫০ টাকায় এবং চীনা পেঁয়াজ ১২০ টাকায় বিক্রি করতে শুরু করে। আবার কোথাও কোথাও দামে ডাবল সেঞ্চুরি।