26.9 C
Chittagong
মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪
spot_img

― Advertisement ―

spot_img
প্রচ্ছদলিডবগুড়ায় বাস-কাভার্ডভ্যানে মুখোমুখি সংঘর্ষ,নিহত ৪

বগুড়ায় বাস-কাভার্ডভ্যানে মুখোমুখি সংঘর্ষ,নিহত ৪

বগুড়ায় বাস ও কাভার্ডভ্যানের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে চার জন নিহত ও ৭ জন আহত হয়েছেন।

গতকাল রাত আড়াইটার দিকে শাহজাহানপুর উপজেলার বনানী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, নিহতরা হলেন-সিরাজগঞ্জের মো. জামাল হোসেন, মো. শামীম হোসেন (৪০), বরিশালের মো. হৃদয় (৩০) এবং অজ্ঞাত পরিচয় এক নারী ।

দুর্ঘটনায় আহতরা হলেন মো. শাওন হোসেন (৩০), মো. রেজাউল করিম (৪৫), মো. বাবুল মিয়া (৩৫), মো. আলিফ (৩৫) মো. সুজন মিয়া (৩৫), অমিত (১০) এবং মোহাম্মদ সৈকত (১৮)। আহতরা সবাই বাস যাত্রী বলে জানিয়েছেন উদ্ধারকারী ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা।

জানা যায়, ঢাকা থেকে যাত্রী নিয়ে ছেড়ে আসা শাহ ফতেহ আলী নামের বাসটি নওগাঁর দিকেই যাচ্ছিল। কাভার্ডভ্যানটি বগুড়া থেকে শেরপুরে যাচ্ছিল।

গাড়ি দুটি শাহজাহানপুর উপজেলার বনানী শাহ সুলতান ফিলিং স্টেশনের সামনে এসে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে হতাহতের ঘটনাাটি ঘটে।

বগুড়া ফায়ার সার্ভিস এবং সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার শহিদুল ইসলাম বলেন, দুর্ঘটনার খবর পাই রাত আড়াইটার দিকে। ঘটনাস্থলে গিয়ে আমরা কাভার্ড ভ্যানের চালকসহ দুই জনকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করি।

শাহ ফতেহ আলী বাসের চার জনকে যাত্রীকে মুমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। এছাড়া আহত কিছু যাত্রী ওই হাসপাতালে ভর্তি হন।

দুর্ঘটনার কারণ জানতে চাইলে শহিদুল ইসলাম বলেন, কাভার্ড ভ্যানটি তার লেন থেকে সরে এসে রাস্তার মাঝখানে চলে আসে। অপরদিকে বাসটিও তার লেন থেকে রাস্তার মাঝখানে চলে আসার ফলে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে বাসের যাত্রীরা আমাদের জানিয়েছেন।

শাজাহানপুর থানার ওসি শহিদুল হক জানান, ঢাকা থেকে নওগাঁগামী শাহ ফতেহ আলী পরিবহের যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা কাভার্ডভ্যানের সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই কার্ভার্ডভ্যানের চালক হৃদয়সহ দুজনের মৃত্যু হয়।

পরে আহতের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে শামীম নামে আরও একজন মারা যান। এরপর চিকিৎসাধীন অবস্থায় জামাল নামে আরও একজনের মৃত্যু হয়। হাসপাতালে ভর্তি আছে ৭ জন।

আহতরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে বলে জানিয়েছেন বগুড়া মেডিকেল ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদশক। বলেন, নিহতদের লাশ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।